Elizabethan Age in English Literature (1558 1603) Summary

Elizabethan Period in English Literature (1558 – 1603) Summary. Elizabethan Age Writers and Their Works. Assignment on Elizabethan Age. Elizabethan Era Literature.

Elizabethan Period in English Literature (1558 – 1603)

The Elizabethan Period in English Literature refers to the history of English writings published during Elizabeth I’s reign in England from 1558 to 1603.  It also includes all published books written by many writers such as Thomas Norton, Thomas Sackville, Edmund Spencer, Richard Hooker, Christopher Marlowe, Sir Philip Sydney, Shakespeare and so more. The Elizabethan Period is known as Elizabethan era literature.

The Simple Definition of the Elizabethan Period

The Elizabethan Period in English Literature means the history of the Elizabethan age writers and their works.

Elizabethan Age in English Literature (1558 – 1603) Summary

This period is named after Queen Elizabeth (1). She was the daughter of King Henry (8) and Queen Anne Boleyn. Queen Elizabeth (1) was also known as the ‘Virgin Queen’.

  • A famous Quotation from Queen Elizabeth is: “A good face is the best letter of recommendation”.
  • Queen Elizabeth started ‘Anglicanism’ to eradicate religious problems. ‘Anglicanism’ means England’s church.
Other Names of the Elizabethan Period in English Literature are:

1) Gloden Period of English Literature
2) A Nest of Singing Birds
3) The First Creative Period of English Literature
The first English Theatre was established in 1576.

The List of Poets of the Elizabethan Period:
  1. Thomas Norton and Thomas Sackville
  2. Edmund Spenser
  3. Sir Philip Sydney
  4. Christopher Marlow
  5. John Webster
  6. Ben Jonson
  7. Francis Bacon
  8. Miguel de Cervantes
  9. Thomas More
  10. Sir Thomas Wyatt & Henry Howard
  11. Nicholas Udall
  12. Thomas Kyd
  13. University Wits
1. Thomas Norton and Thomas Sackville

Thomas Norton and Thomas Sackville both were literary collaborators. They wrote the first tragedy in English literature. That is :
Play: ‘The Tragedy of Gorboduc’. (It is also called: Ferrex and Porrex).

2. Edmund Spenser

Titles:  1) The Second Father of English Poetry.
2) The Prince of Poet.
3) The Poet of Poets. (This was engraved in his epitaph).
4) Court Poet.
5) Divine Master.
Edmund Spencer’s Literary Works :
Epic: 1) ‘The Faerie Queen’ – It is an allegorical epic. The main characters of this poem are The Red Cross Knight (Hero), and Una (Heroine).
Poetry: 1) Amoretti – a collection of 89 sonnets.
2) Astrophel – An elegy for Sir Philip Sydney.
3) The Shepherd’s Calendar – Dedicated to Sir Philip Sydney.
4) The Epithalamion.
5) Four Hymns.

3. Sir Philip Sydney

Titles: The Precursor of English Renaissance.
Poetry:
1) Arcadia (Novel) – The embryo of the English Novel.
2) The Lady of May
3) An Apology for Poetry.
4) Astrophel and Stella.

4. Christopher Marlow

Titles:  1) Father of English Drama ( Tragedy).
2) Predecessor of William Shakespeare.

  • Christopher Marlow introduced ‘Blank Verse’ in English Literature.
  • Alfred Tennyson called him ‘Morning Star’.

Famous Lyrics:
1) The Passionate Shepherd to His Love.
2) Hero and Leander.
Famous Plays (Tragedy) :
1) Doctor Faustus – Full Title: ‘The Tragical History of the Life and Death of Doctor Faustus’.

  • Faustus is called a ‘Renaissance Hero’.
  • In this play, Faustus ( Hero) sold his soul to satan for 24 years.
  • Characters are Dr.Faustus, Helen, Lucifer, Mephistopheles, etc.
  • The famous quote of this tragedy: “Sweet Helen, make me immortal with a kiss”.

2) Dido, Queen of Carthage – It is Marlow’s first play.
3) Tamburlaine, The Great.
4) The Jew of Malta. – Main character: Barabas ( a jew). It is assumed that William Shakespeare wrote ‘The Merchant of Venice’ from being inspired by this play.
5) Edward (2) – It is a historical play.
Famous Quotes of Christopher Marlow :
1) “Was this the face that launched a thousand ships, and burnt the topless towers of illium”.
2) “Man is the maker if his own fate”.
3) “There is no sin but ignorance”.
4) “Come and be my friend”.

5. John Webster

John Webster claimed himself as the heir to the Shakespeare.
Famous Tragedies :
1) The White Devil.
2) The Devil’s Law Case.
3) The Duchess of Malfi – Character: Bosola ( A Machiavellian character). Machiavellian means: Selfish.

6. Ben Jonson

Titles:
1) Father of Comedy of Humour.
2) Father of English Realistic Comedy.

  • Ben Jonson’s comedy is connected with medical theory.

Plays:
1) Every Man in His Humour.
2) Every Man Out of His Humour.
3) Volpone – It is also known as ‘The Foxes’ or ‘The Beast Fable’.
Character from Volpone : Mosca.
4) The Alchemist.
5) The Silent Woman. – Its other name is: ‘Epicoene’.

7. Francis Bacon

Francis Bacon Titles:
1) Father of English Essay.
2) Father of Modern Prose.
3) First Essayist in English Literature.
4) Father of Empiricism.
5) Master of Aphorism and Terseness.

  • Francis Bacon was an Attorney General, a Statesman, and also a Lord Chancellor.
  • Most of his essays started with ‘of’.

Francis Bacon’s Famous Essay
1) Of Studies. – Some quotes from this essay are given below :

  • “History makes man wise”.
  • ” A wise nan will make more opportunities than he find”.
  • “Reading maketh a full man, confidence a ready man; writing an exact man”.
  • ” Studies serve for delight, for ornament and for ability”.
  • “Some vooks are to be tasted, other to be swallowed and some few to be chewed and digested”.

2) Of Death.
3) Of Friendship. – Famous quote from this essay :

” A good friend is another himself”.

4) Of Plantantains.
5) Of Truth. – Some quotes from this essay are :

  • “Opportunity makes a theif”.
  • ” Silence is the sleep that nourishes wisdom”.
  • “The secret of the success is the constancy of purpose”.
  • “In order for the light to shine so brightly, the darkness must be present”.
  • “Read not to contradict and confute, nor to believe and take for granted but to wigh and consider”.
  • “A mixture of lies does ever add pleasure”.

6) Of Great Place.
7) Of Love. – Famous quotes from this essay are:

  • It is impossible to love and be wise.

8) History of Life and Death. – A Famos quote of this essay is :

  • ” It is natural to die to death as to be born”.

9) Ladder of the Mind. – A quote of this essay is :

    • ” Wise men make more opportunities than they find”.

10) Of Marriage and Single Life. Famous quotes from this essay are:

  • “Wives are young men’s mistress, companions for middle age and old men’s nurses”.
  • “A bachelor’s life is a fine breakfast, a flat lunch and a miserable dinner”.
  • “Hope is a good breakfast, but it is a bad supper”.
  • ” Unmarried man are best friends, best masters, best servant but not always best subject”.

11) Of Revenge.

  • The famous quote from this essay: “Revenge is a kind of wild justice”.

12) Of Suspicion. – A famous quote of this essay is :

  • ” Suspicions among thoughts are like bats among birds”.
Francis Bacon’s Famous Books :

1) The Advancement of Learning.
2) Novum Organum.
3) The Wisdom of Ancients.
4) Divine and Humane.
5) The New Atlantis.
6) Meditationes Sacrae. ( Sacred Meditations). – A very famous quote from this book is: “Knowledge is power”.
7) Apophthegmes New and Old..- A famous quote from this book is:

  • “Age appears best in four things : Old wood to burn, old wine to drink, old friends to trust and old author to read”.
8. Miguel de Cervantes

Famous Book: ‘Don Quixote’.

9. Thomas More

Book: ‘ Utopia ‘ ( An imaginary island where there is no problem).

10. Sir Thomas Wyatt & Henry Howard

Their Famous Book: Tottle’s Miscellany ( It is called the First Fruit of Renaissance).

11. Nicholas Udall

Title: Father of English Comedy.
Comedy: ‘ Ralph Roister Doister ‘.

12. Thomas Kyd

Title: 1) A University Wit.
2) Father of English Revenge Tragedy.
Famous play: ‘ The Spanish Tragedy ‘ ( Bloody Drama ). – William Shakespeare from being inspired by this play, wrote: Hamlet.

13. University Wits

A group of young dramatists and pamphleteers of the Elizabethan period who were the scholars of Oxford and Cambridge University are called ‘University Wits’.

There are seven famous University Wits. They are :
1) Christopher Marlow. ( Already Discussed).
2) Thomas Kyd. ( Already Discussed).
3) George Peele :
Famous Books :
1) The Old Wife’s Tale.
2) Famous Chronicle of King Edward (1).
4) Thomas Nashe:
Title: The Greatest of English Elizabethan Pamphleteers.
Novel: The Unfortunate Traveller.
Play:    1) Summer’s Last Will.
2) Testament.
5) John Lyly:
Play:    1) King Midas
2) The Women in the Moon.
Book: ‘ The Anatomy of Wit ‘.
6) Thomas Lodge :
Thomas Lodge was a Physician.
Book:
1) Golden Legacy.
2) Rosalynde.
7) Robert Greene:
Comedy: ‘ Friar Bacon ‘.

Important Periods of English Literature
English Literature Period Duration
The Old English Period 450-1066
The Middle English Period :
1. The Anglo-Norman Period
2. The Age of Chaucer
3. The Age of Barren / Dark Age
(1066-1500)
1. 1066-1340
2. 1340-1400
3. 1400-1485/1500
The Renaissance Period :
1. Elizabethan Period
2. Jacobean Period
3. Caroline Period
4. Commonwealth Period
1500-1660 :
1. 1558-1603
2. 1603-1625
3. 1625-1649
4. 1649-1660
The Neo-Classical Period :
1. The Restoration Period
2. Augustan Period
3. The Age of Sensibility
(1660-1798)
1. 1660-1700
2. 1700-1745
3. 1745-1798.
Romantic Period 1798-1832
Victorian Period 1832-1900
Modern Period :
1. The Edwardian Period
2. The Georgian Period
(1900-1939)
1. 1901-1910
2. 1910-1939
Post Modern Period 1939- Present

 

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব / পঞ্চপাণ্ডব কবিদের নাম

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপাণ্ডব- Bangla Sahitter Poncho Pandob Kobi

ইংরেজি কবিতার অনুবাদ করে, গঠন প্রকৃতি, ধরন প্রভৃতি অনুসরণ করে বাংলা সাহিত্যে যে নতুন কবিতার ধারা সৃষ্টি হয়, সেসকল কবিতাকে বাংলা সাহিত্যের আধুনিক কবিতা বলা হয়। আর এই আধুনিক কবিতা রচনা শুরু করেন যারা তাদের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য (প্রধান) ৫ জন কবিদেরকে একত্রে ‘পঞ্চপাণ্ডব’ বলা হয়। আধুনিকতাবাদী পঞ্চপাণ্ডবগন সকলে ছিলেন ত্রিশ দশকের কবি।

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপাণ্ডব কবিদের নাম

পঞ্চপাণ্ডব কবিদের নাম: জীবনানন্দ দাশ, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, বিষ্ণু দে, বুদ্ধদেব বসু, এবং অমিয় চক্রবর্তী।

পঞ্চপাণ্ডব কবিদের নাম জীবনানন্দ দাশ, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, বিষ্ণু দে, বুদ্ধদেব বসু, এবং অমিয় চক্রবর্তী

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব কবি: জীবনানন্দ দাশ

১) জীবনানন্দ দাশ : জন্ম- ১৮৯৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশাল জেলার ধানসিঁড়ি গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। জীবনানন্দ দাশ মৃত্যু – ১৯৫৪ সালের ১৪ অক্টোবর, ট্রাম দুর্ঘটনায় আহত হয়ে, কলকাতার শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

উপাধি : নির্জনতম কবি – আখ্যা দিয়েছেন বুদ্ধদেব বসু। এছাড়াও তার আরও কিছু উপাধি হলো: তিমির হননের কবি, ধূসরতার কবি, রূপসী বাংলার কবি, জনবিচ্ছিন্ন কি, প্রকৃতির কবি, শুদ্ধতম কবি ইত্যাদি।

  • জীবনানন্দ দাশকে নিয়ে গবেষণা করেন – মার্কিন গবেষক ক্লিনটন বুথ সিলি।
  • জীবনানন্দ দাশের মা – একজন বিখ্যাত কবি কুসুমকুমারী দাশ
  • রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনানন্দের কবিতাকে ‘চিত্ররূপময় কবিতা’ বলেছেন।
জীবনানন্দ দাশের সাহিত্যকর্ম:

কাব্যগ্রন্থ:

১) ঝরাপালক : কবির প্রকাশিত প্রথম কবিতা। ১৯২৭ সালে এই কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশিত হয়।

২) বনলতা সেন : ১৯৪২ সালে প্রকাশিত হয়। এটি এডগার এলেন পো রচিত ‘টু হেলেন’ কবিতা অবলম্বনে রচিত। বনলতা সেন কাব্যের অন্তর্ভুক্ত কবিতাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ২টি কবিতা হলো-

  • বনলতা সেন : কয়েকটি লাইন এরূপ- সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকার মালয় সাগরে…….., পাখির নীড়ের মত চোখ তুলে বলেছিল নাটরের বনলতা সেন……., চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা……
  • হায় চিল : আবার তাহারে কেন ডেকে আনো? কে হায় হৃদয় খুঁড়ে বেদনা জাগাতে ভালোবাসে।

৩) ধূসর পাণ্ডুলিপি,

৪) সাতটি তারার তিমির  : কাব্যের বিখ্যাত কবিতা ‘আকাশলীনা’। আকাশলীনা কবিতার বিখ্যাত ২টি লাইন : সুরঞ্জনা, ওইখানে যেয়ো নাকো তুমি, বোলোনাকো কথা ওই যুবকের সাথে…

৫) বেলা অবেলা কালবেলা,

৬) মহাপৃথিবী,

৭) রূপসী বাংলা – এই কাব্যগ্রন্থের জন্য জীবনানন্দ দাশকে রূপসী বাংলার কবি বলা হয়েছে। রূপসী বাংলা কাব্যটি জীবনানন্দ দাশের মৃত্যুর পরে প্রকাশিত হয়।  এই কাব্যগ্রন্থটি ‘স্বদেশ প্রীতি ও নিসর্গময়তার পরিচায়ক’।  রূপসী বাংলা কাব্যের উল্লেখযোগ্য কবিতাগুলো হলো : আবার আাসিব ফিরে, বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, সেই দিন এই মাঠ প্রভৃতি। কবিতাগুলোর লাইনগুলো নিম্নে বর্ননা করা হলো:

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি : বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি,  তাই পৃথিবীর রূপ খুজিতে যাই না আর : অন্ধকারে.

আবার আসিব ফিরে : আবার আসিব ফিরে এই ধানসিঁড়ির তীরে – এই বাংলায় হয়তে মানুষ নয় হয়তোবা শঙ্খচিল শালিকের বেশে….

উপন্যাস : ১) মাল্যবান,  ২) সতীর্থ,  ৩) কল্যাণী।

প্রবন্ধ গ্রন্থ : ১) কবিতার কথা,  ২) কেন লিখি।

গল্প সংগ্রহ : জীবনানন্দ দাশের গল্প।

বিখ্যাত কবিতাগুলো হলো : বনলতা সেন, অবসরের গান, পেঁচা, হায়চিল, বোধ ইত্যাদি।

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব কবি: সুধীন্দ্রনাথ দত্ত

২) সুধীন্দ্রনাথ দত্ত : জন্ম- ১৯০১ সালের ৩০ অক্টোবর, কলকাতার হাতীবাগানে জন্মগ্রহণ করেন। এবং ২০জুন, ১৯৬০ সালে মৃত্যুবরন করেন।

উপাধি: সুধীন্দ্রনাথ দত্ত ‘ক্লাসিক কবি’ হিসেবে স্বীকৃত।

সম্পাদিত পত্রিকা : ১৯৩১ সালে ‘পরিচয়’ নামক ত্রৈমাসিক পত্রিকা সম্পাদনা করতেন।

কাব্যগ্রন্থ :

১) তন্বী – সুধীন্দ্রনাথ দত্তের প্রথম কাব্য। এটি ১৯৩০ সালে প্রকাশিত হয়। ‘তন্বী’ কাব্যটিকে তিনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে উৎসর্গ করেন।

২) ক্রন্দসী – কাব্যের কবিতা : ‘উটপাখি’। উটপাখি কবিতাটির বিখ্যাত লাইন – অন্ধ হলে কি প্রলয় বন্ধ থাকে?

৩) প্রতিদিন,  ৪) উত্তর ফাল্গুনী,  ৫) সংবর্ত,  ৬) দশমী,

৭) প্রতিধ্বনি : এটি একটি অনুবাদ কাব্য।

৮) অর্কেস্ট্রা।

গল্পগ্রন্থ :  সুধীন্দ্রনাথ দত্তের ২টি গল্পগ্রন্থ রয়েছে।  ১) স্বগত  ২) কুলায় ও কালপুরুষ।

প্রবন্ধ :  কাব্যের মুক্তি – কাব্যের মুক্তি প্রবন্ধটিকে আধুনিক বাংলা কবিতার ইশতেহার হিসেবে গণ্য করা হয়।

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব কবি: অমিয় চক্রবর্তী

৩) অমিয় চক্রবর্তী :  জন্ম- ১৯০১ সালের ১০ এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার শ্রীরামপুরে। মৃত্যু- ১৯৮৬ সালে মৃত্যুবরন করেন।

  • অমিয় চক্রবর্তী ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের’ সাহিত্য সচিব ছিলেন।
  • ১৯৬০ সালে ‘ইউনেস্কো পুরস্কার’ পান।
  • ১৯৭০ সালে ভারত সরকার কর্তৃক ‘পদ্মভূষণ’ উপাধিতে ভূষিত হন।

কাব্যগ্রন্থ :

১) খসড়া –  অমিয় চক্রবর্তীর প্রথম প্রকাশিত কাব্য।

২) অনিঃশেষ – কাব্যটি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক। ‘অনিঃশেষ’ কাব্যের বিখ্যাত কবিতা – ‘বাংলাদেশ’। অমিয় চক্রবর্তীর বাংলাদেশ কবিতাটি: অক্ষরবৃত্ত ছন্দে রচিত। এই কবিতাটিতে ‘বাংলাদেশ’ শব্দটি ৪ বার উল্লেখিত হয়েছে।

৩) পালাবদল,  ৪) মাটির দেয়াল,  ৫) এক মুঠো,   ৬) পারাপার , ৭) দূরবাণী,  ৮) পুষ্পিত ইমেজ,  ৯) হারানো অর্কিড,  ১০) অভিজ্ঞান বসন্ত,   ১১) ঘরে ফেরার দিন,  প্রভৃতি।

প্রবন্ধ : ১) সাম্প্রতিক,  ২) পথ অন্তহীন,  ৩) চলো যাই,  ৪) পুরবাসী।

 

৪) বুদ্ধদেব বসু : জন্ম- ১৯০৮ সালের, ৩০ নভেম্বর, কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। মৃত্যু- ১৯৭৪ সালে মৃত্যুবরন করেন।

  • রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর পরবর্তী ‘সব্যসাচী লেখক’ হিসেবে পরিচিত।

সম্পাদিত পত্রিকা : ১) প্রগতি,   ২) চতুরঙ্গ,   ৩) কবিতা,

৪) বাসন্তিকা – এই পত্রিকাটি তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে থাকা অবস্থায় সম্পাদনা করতেন।

কাব্যগ্রন্থ : ১) মরচেপড়া পরেকের গান,   ২) মর্মবাণী,   ৩) কঙ্কাবতী,   ৪) দময়ন্তী,

৫) বন্দীর বন্দনা,   ৬) স্বাগত বিদায়।

প্রবন্ধ :  ১) হঠাৎ আলোর ঝলকানি,  ২) কালের পুতুল,   ৩) স্বদেশ ও সংস্কৃতি ,  ৪) সাহিত্য চর্চা

৫) রবীন্দ্রনাথ : কথা সাহিত্য,

৬) কবি রবীন্দ্রনাথ,

৭) সঙ্গ নিঃসঙ্গতা ও রবীন্দ্রনাথ।

উপন্যাস : ১) গোলাপ কেন কালো,  ২) তিথিডোর,  ৩) নীলাঞ্জনের খাতা,  ৪) নির্জন স্বাক্ষর,   ৫) রাতভর বৃষ্টি,

৬) রুকমি,  ৭) পরিক্রমা,  ৮) কালো হাওয়া,  ৯) সাড়া,  ১০) লালমেঘ,  ১১) পাতাল থেকে আলাপ,  ১২) সানন্দা, প্রভৃতি।

অনুবাদ গ্রন্থ :  মেঘদূত।  (মূল রচয়িতা : মহাকবি কালিদাস)।

নাটক : ১) কলকাতার ইলেক্ট্রা ও সত্যাসন্ধ,   ২) তপস্বী ও তরঙ্গিণী,   ৩) মায়া মালঞ্চ।

গল্পগ্রন্থ : ১) একটি জীবন ও কয়েকটি মৃত্যু,  ২) রেখাচিত্র,   ৩) অভিনয় ,   ৪) হাওয়া বদল,   ৫) ভাসো আমার ভেলা,   ৬) হৃদয়ের জাগরণ,   ৭) অভিনয় নয়।

স্মৃতিকথা : ১) আমার যৌবন,   ২) আমার ছেলেবেলা।

ভ্রমণ কাহিনি : ১) জাপানি জার্নাল,  ২) সব পেয়েছির দেশে,  ৩) দেশান্তর।

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব কবি: বিষ্ণু দে

৫) বিষ্ণু দে : জন্ম- বিষ্ণু দে ১৯০৯ সালের ১৮ জুলাই কলকাতার পটলডাঙ্গায় জন্মগ্রহণ করেন। মৃত্যু- তিনি ৩ ডিসেম্বর, ১৯৮২ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

  • পঞ্চপাণ্ডবদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কবিতা রচনা করেন কবি বিষ্ণু দে।
  • মার্কসবাদী কবি বা ‘মার্কসিস্ট’ কবি নামে খ্যাত।
  • বাংলায় টি.এস.এলিয়টের কবিতার দ্বিতীয় অনুবাদক। (প্রথম অনুবাদক, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)।
  • ‘এলিয়টের কবিতা’ নামক একটি অনুবাদ গ্রন্থ রচনা করেন। এটি ১৯৫০ সালে প্রকাশিত হয় ।

সম্পাদিত পত্রিকা : ১) সাহিত্যপত্র,  ২) নিরুক্তা।

কাব্যগ্রন্থ :  ১) উর্বশী ও আর্টেমিস – কবির প্রথম প্রকাশিত কাব্য।

২) তুমি শুধু পঁচিশে বৈশাখ,  ৩) চোরাবালি,  ৪) সাতভাই চম্পা,  ৫) আমার হৃদয়ে বাঁচো,  ৬) সন্দীপের চর,

৭) নাম রেখেছি কোমল গান্ধার,  ৮) উত্তরে থাকে মৌন,  ৯) চিত্ররূপমত্ত পৃথিবী,   ১০) স্মৃতিসত্তা ভবিষ্যৎ, ইত্যাদি।

প্রবন্ধ :  ১) সাহিত্যের ভবিষ্যৎ,  ২) রুচি ও প্রগতি,  ৩) সাধারণের রুচি,  ৪) এলোমেলো জীবন ও শিল্প সাহিত্য।

স্মৃতিকথা : ছড়ানো এই জীবন।

বাংলা সাহিত্যের পঞ্চপান্ডব কবি থেকে আসা গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাবলী :

বিগত বছরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায়পঞ্চপাণ্ডবথেকে আসা গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাবলী :

১) পঞ্চপাণ্ডব বলা হয় কাদের? উ: তিরিশ দশকের ৫ জন কবিদের পঞ্চপাণ্ডব বলা হয়।  তারা হলেন- জীবনানন্দ দাশ, সুধীন্দ্রনাথ দত্ত, অমিয় চক্রবর্তী,  বুদ্ধদেব বসু, বিষ্ণু দে।

২) তিরিশ দশকের সবচেয়ে ‘তথাকথিত’ কোন গণবিচ্ছিন্ন কবি এখন বেশ জনপ্রিয়? উ: জীবনানন্দ দাশ।

৩) কার কবিতাকে ‘চিত্ররূপময়’ বলা হয়েছে?  উ: জীবনানন্দ দাশ।

৪) ১৮৯৯ সালে জন্মগ্রহণ করেন কোন দুজন কবি? উ: কাজী নজরুল ইসলাম, ও জীবনানন্দ দাশ।

৫) জীবনানন্দ দাশের অনুবাদ কাব্যের নাম কি? উ: মহাপৃথিবী।

৬) পঞ্চপাণ্ডবের কোন কবি কখনো উপন্যাস লেখেন নি? উ: সুধীন্দ্রনাথ দত্ত।

৭) ‘অন্ধ হলে প্রলয় কি বন্ধ থাকে’ পঙক্তির স্রষ্টা কে? উ: সুধীন্দ্রনাথ দত্ত।

৮) ‘তন্বী’ কাব্যের কবি কে? উ: সুধীন্দ্রনাথ দত্ত।

৯) ‘বাংলাদেশ’ কবিতাটি কার লেখা? উ: অমিয় চক্রবর্তী।

১০) ‘বাংলাদেশ’ কবিতাটি অমিয় চক্রবর্তীর কোন কাব্যগ্রন্থের অন্তর্ভুক্ত?  উ: অনিঃশেষ।

১১) ‘কবিতা’ পত্রিকা সম্পাদনা করতেন কে? উ: বুদ্ধদেব বসু।

১২) ‘হঠাৎ আলোর ঝলকানি’ কোন জাতীয় রচনা?  উ: প্রবন্ধগ্রন্থ।

১৩) ‘তিথিডোর’ উপন্যাসের রচয়িতা?  উ: বুদ্ধদেব বসু।

১৪) ‘কালের পুতুল’ কোন ধরনের রচনা? উ: প্রবন্ধ।

১৫) জীবনানন্দ দাশের প্রবন্ধগ্রন্থ কোনটি? উ: কবিতার কথা, কেন লিখি।

১৬) জীবনানন্দ দাশের প্রথম কাব্যগ্রন্থ কোনটি? উ: ঝরাপালক।

১৭) ‘মাল্যবান’ কোন ধরনের রচনা? উ: জীবনানন্দ দাশ রচিত উপন্যাস।

১৮) জীবনানন্দের  ‘আকাশলীনা’ কবিতাটি কোন কাব্যের অন্তর্ভুক্ত? উ: সাতটি তারার তিমির।

১৯) ‘সোনার স্বপ্নে সাধ পৃথিবীতে কবে আর ঝরে’ কবিতাংশটি কার লেখা? উ: জীবনানন্দ দাশ।

২০) ‘নির্জন স্বাক্ষর’ উপন্যাসের লেখক কে?  উ: বুদ্ধদেব বসু।